এক নজরে জাগো উদ্যোক্তা লিঃ

জাগো উদ্যোক্তা লিঃ আর্থ সামাজিক উন্নয়নে গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের RJSC কর্তৃক অনুমোদিত প্রতিষ্ঠান। রেজি: নং C-১৫৭৭৭৯/২০১৯ । শিক্ষা, স্বাস্থ্য, পরিবেশ ও পণ্য সেবায় উদ্যোক্তা তৈরী করা এই প্রতিষ্ঠানের অন্যতম লক্ষ্য। কোন ব্যাক্তি অফ লাইন এবং অনলাইনে জাগো উদ্যোক্তা লিঃ এ সম্পৃক্ত হয়ে নিজেকে স্বাবলম্বী হিসাবে গড়ে তুলতে পারবে। এই প্রতিষ্ঠানে চাকুরী করে যেমন আর্থিক সচ্ছল হতে পারবেন তেমনি একজন শোভাকাংখী বা গ্রাহক হয়েও বিভিন্ন সুযোগ সুবিধা নিতে পারবেন। করোনা কালীন সময় ও করোনা পরবর্তী সময় এবং মানুষের মুল্যবান সময়ের প্রতি গুরুত্ব দিয়ে জাগো উদ্যোক্তা লিঃ জাগো এফিলিয়েট নামে অনলাইন সেবা চালু করেছে।
জাগো এফিলিয়েটে গ্রাহক হিসাবে নিবন্ধিত হয়ে গ্রোসারী পণ্য থেকে লাক্সারী পণ্য সেবা সাশ্রয়ী মূল্যে গ্রহন করে অর্থ ও সময় বাঁচাতে পারেন।
পাট পণ্য তৈরীর ট্রেনিং, পাম অয়েল ট্রি প্ল্যান্টেশন ও ফেমিলি নীডস পণ্য নিয়েই জাগো উদ্যোক্তা লিঃ এর কার্যক্রমের যাত্রা শুরু। বিস্তারিত জানার জন্য স্থানীয় প্রতিনিধি, অয়েবসাইট কিংবা প্রধান কার্যালয়ের হট লাইনে যোগাযাগ করুন।
মোবাইল নং 01810168800
কর্পোরেট কার্যালয়ঃ- হাউজ ৯(৩য় তলা), রোড ২০, সেক্টর ১০, উত্তরা, ঢাকা

কোম্পানীর সারসংক্ষেপ

যেখানে সকল ক্ষেত্রে আধুনিকতার চোঁয়া সেখানে গতানুগতিকভাবে ব্যাবসা পরিচালনা করে সফল হওয়া অনেকটা কষ্টসাধ্য।আর আধুনিকতার সাথে সংগতি রেখে ইন্টানেটের এই যুগে ইন্টানেট ব্যাবহারের মাধ্যমে ব্যবসা পরিচালনা করলে সহজেই গ্রাহকের কাছে পৌছানো সম্ভব। আমাদের ব্র্যান্ড বা পণ্য যত বেশি গ্রাহকের কাছে পৌছাতে পারব তত বেশি বিক্রি হবার সম্ভাবনা থাকবে। মানুষ যদি ঘরে বসে তাদের প্রয়োজনীয় পণ্য বাজার মূল্যে পেতে পারে তবে এই সুযোগটিকেই লোফে নিবে সাধারন গ্রাহকরা। যদিও বর্তমানে কিছু কিছু অনলাইন ব্যবসা প্রতিষ্টান গ্রাহক ঠকানোয় দরুন অনলাইন পণ্যের প্রতি গ্রাহকের আস্থা কমে যাচ্ছে।তথাপী এই সমস্যা সমাধানের জন্য আমরা কিছু কমিশনভুক্ত ও বেতনভুক্ত কর্মী নিয়োগ দিয়ে সঠিক সময়ে সঠিক মানের পণ্য গ্রাহকের কাছে পৌছে দিয়ে গ্রাহকের আস্থা ফিরিয়ে আনার চেষ্টা করছি। আর গ্রাহককে সন্তুষ্টি করতে পারলে স্বভাবতই গ্রাহক থেকে গ্রাহক বৃদ্ধির মাধ্যমে আমাদের কোম্পানী নিউ ব্যান্ড হিসাবে মাথা উচু করে দাড়াতে এবং ঠিকে থাকতে পারবে ইনশাল্লাহ।

জাগো উদ্যোক্তা লিঃ কি ধরনের কোম্পানী ?

জাগো উদ্যোক্তা লিঃ হল একটি ই-কমার্স ভিত্তিক অনলাইন শপিং শপ। উদ্যোক্তা ও গ্রাহকের সম্মিলত সুযোগ সুবিধা ভোগকারী একটি সামাজিক ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠান বটে। যেখানে এফিলিয়েট সিস্টেমে কিছু নির্দিষ্ট ব্যাক্তি অনলাইন থেকে ইনকাম করতে পারবে এবং সাধারন গ্রাহক স্বাশ্রয়ী মূল্যে নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্য ক্রয় করতে পারবে। প্রশিক্ষণের মাধ্যমে দক্ষ উদ্যোক্তা হবার একটি অন্যতম কোম্পানি জাগো উদ্যোক্তা লিঃ।এই কোম্পানি শিক্ষা,স্বাস্থ্য, পরিবেশ ও পণ্য নিয়ে কাজ করছে।

কোম্পানীর কর্মীর সংখ্যা

0
জোনাল ম্যানেজার
0
ডিস্ট্রিক ম্যানেজার
0
টেরিটরি ম্যানেজার
0
ইউনিট সুপারভাইজার
0
সেলস রিপ্রেজেন্টেটিভ

জাগো উদ্যোক্তা লিঃ এর মার্কেটিং প্ল্যান

নিত্য ব্যবহার্য পণ্য সামগ্রী সর্বস্তরের মানুষের মাঝে সহজলভ্য করে পোছানো। এ ব্যবসায় সম্পৃক্ত করে বেকার কিংবা স্বল্প আয়ের মানুষ যারা অবসর সময়ে স্বাধীনভাবে কর্ম করে সৎপথে উপার্জিত অর্থে জীবন যাপন করতে আগ্রহী,তাদের জন্য স্ব-কর্ম সংস্থান বা পার্টটাইম কাজের মাধ্যমে উপার্জনে সহযোগীতা করা। স্বল্প মূল্যে চিকিৎসা সেবা প্রদান, প্রয়োজনীয় ও প্রচলিত পণ্য ই-কমার্স ভিত্তিক বাজারজাত করে অর্থনৈতিক স্বচ্ছলতার মাধ্যমে নৈতিকতা ও মানবতা রক্ষা করে প্রশিক্ষনের মাধ্যমে দক্ষ জনশক্তি তৈরী করে সমৃদ্ধ সমাজ তথা ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়তে সহযোগীতা করা। আরও যে সব লক্ষ্য নিয়ে কোম্পানি কাজ করছে-

  • ১. প্রশিক্ষনের মাধ্যমে দক্ষ জনশক্তি তৈরী করে ৬৪টি জেলায় উদ্যোক্তা তৈরী করা
    ২. ক্ষুদ্র ও মাঝারি ফার্ম প্রতিষ্টা করা ( উদ্যোক্তাদের দ্বারা)
    ৩. কৃষি পণ্য হিসাবে পাটকে বিশ্বের দরবারে উপস্থাপনা করা
    ৪. স্বল্প মূল্যে চিকিৎসা সেবা প্রদান করা
    ৫. জেলা ভিত্তিক কৃষি খামার প্রতিষ্টা করা
    ৬. ইউনিয়ন পর্যায়ে ৫০০ জন করে ক্ষুদ্র উদ্যোক্তা তৈরী করা
    ৭. বিভাগীয় পর্যায়ে শিল্প কারখানা স্থাপন করা
    ৮. সহজ শর্তে আগ্রহী উদ্যোক্তাদের মাঝে উদ্যোক্তা ঋন বিতরন করা
    ৯. জেলা পর্যায়ে জাগো ডিপার্টমেন্টাল স্টোর স্থাপন করা

মার্কেটিং প্ল্যান

 জাগো উদ্যোক্তা লিমিটেড শিক্ষা, স্বাস্থ্য, পণ্য ও পরিবেশ কার্যক্রমের মাধ্যমে উদ্যোক্তা তৈরি করার একটি লিমিটেড কোম্পানি।যা ডিজিটাল এফিলিয়েট পদ্ধতিতে কারিগরি শিক্ষার আওতায় কর্মদ্যোগী ও কর্মমুখী উদ্যোক্তা তৈরি করে।  বাংলাদেশ সরকারের রেজিস্ট্রার অব জয়েন্ট স্টক কোম্পানিজ (আরজেএসসি)কর্তৃক নিবন্ধিত একটি প্রতিষ্ঠান । নিবন্ধন নং সি157779/2019 । যা সিস্টেম ডেভেলাপের মাধ্যমে অনলাইন ইনকাম নিশ্চিত করে থাকে। কোম্পানীর সকল কার্যক্রম ও অর্থনৈতিক লেনদেন অনলাইনের মাধ্যমে সম্পন্ন হয়ে থাকে।

 কমার্স কি ?

 ইন্টারনেটের মাধ্যমে ব্যবসায়িক লেনদেন ও সুবিধা ব্যবহার করাকে ই-কমার্স বলে।যে কোন ব্যাবসা ইলেকট্রনিক এর মাধ্যমে পরিচালনা করাই হলো ইন্টারনেট কমার্স সংক্ষেপে ই-কমার্স।এফিলিয়েট হল অনলাইন ভিত্তিক টাকা আয় করার একটি অত্যাধুনিক পদ্ধতি। একজন ব্যক্তি যখন অনলাইনে কিছু গ্রাহকের কাছে পণ্য বিক্রি করে মুনাফার একটি অংশ কমিশন পেয়ে থাকে সেটাই মূলত এফিলিয়েট ইনকাম । অন্যভাবে সেলস টিম গঠন করে তাদের মাধ্যমে সেলস করেও এফিলিয়েট ইনকাম করা যায়। বিষয়টি  অত্যন্ত সহজ হলেও আমাদের দেশের প্রেক্ষিতে এফিলিয়েট ইনকাম করতে গেলে কতগুলো জটিলতার মধ্যে পড়তে হয় যা শুধুমাত্র অনলাইনে দক্ষ ব্যক্তিরাই সমাধান করতে পারে। আমরা এফিলিয়েট সিস্টেমটিকে এ দেশের প্রেক্ষিতে অত্যন্ত  সহজভাবে ডেভেলাপ করতেছি যে ব্যায় থেকেই আয় এই নীতির উপর ভিত্তি করে অনলাইনে বেসিক জ্ঞান সম্পন্ন যেকোনো ব্যাক্তিই আমাদের এফিলিয়েট প্রোগ্রামে অংশগ্রহণ করে সহজেই ইনকাম করতে পারে।

কোম্পানির অর্গানোগ্রাম

 কোম্পানিতে ফুল টাইম (বেতনভুক্ত) এবং পার্টটাইম(কমিশনভিত্তিক) দায়িত্ব পালন করে আয় করতে পারবেন।

মার্কেটিং বিভাগে কোম্পানির পদসমূহ

 ডাইরেক্টর মার্কেটিং

 জেনারেল ম্যানেজার (জিএম)

 ন্যাশনাল ম্যানেজার (এনএম)

 জোনাল ম্যানেজার (জেডএম)

 ডিস্ট্রিক্ট ম্যানেজার (ডিএম)

 টেরিটরি ম্যানেজার (টিএম)

 ইউনিট সুপারভাইজার (ইউএস)

 সেলস রিপ্রেজেন্টেটিভ (এসআর)

 বেতনভুক্ত কর্মী /কর্মকর্তাদের টার্গেট অরিয়েন্টেড কাজ করে বেতন দিতে হয়।

 কমিশন ভিত্তিক কর্মীদের/কর্মকর্তাদের কাজ অনুযায়ী কমিশনপ্রাপ্ত হতে হয়।

 বেতনভুক্ত কর্মী/ কর্মকর্তাগণ টার্গেট পূরণ করতে না পারলে সেলস অনুযায়ী কমিশন প্রদান করা হয়।

কাজের ধরন সমূহ

শিক্ষা প্রকল্পঃ

  1. উদ্যোক্তা তৈরি করা
  2. পাট পণ্য উৎপাদনের প্রশিক্ষণ
  3. বুটিকস
  4. সেলাই প্রশিক্ষণ
  5. আইটি
  6. বায়োফ্লক পদ্ধতিতে মাছের চাষ
  7. অন্যান্য

প্রশিক্ষণ ফি

প্রশিক্ষণের ধরন অনুযায়ী প্রশিক্ষণ ফি 5000 টাকা থেকে 30000 টাকা পর্যন্ত। (কর্ম ও আয় নিশ্চিত করা হয়)

স্বাস্থ্য সেবা

 মেডিকেল ক্যাম্প এর মাধ্যমে স্বাস্থ্যসেবা প্রদান সহ সুস্বাস্থ্য নিশ্চিত করা হয়।

পণ্য সেবা

 পণ্য যাবে ঘরে এই শ্লোগানকে সামনে রেখে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্য সাশ্রয়ী মূল্যে সর্বস্তরের মানুষের নিকট সহজলভ্য করা।

পরিবেশ (ট্রি প্লান্টেশন)

 জনগণকে উদ্বুদ্ধ করে প্রান্ত্রিক লেভেলে উন্নত জাতের ফলজ চারা স্বল্প মূল্যে সরবরাহ নিশ্চিত করা। কোম্পানি কর্তৃক উন্নত জাতের বনজ ও ফলজ চারা রোপণ করে বাগান প্রস্তুত করা।

কাজের লক্ষ্যমাত্রা, বেতনভাতা অন্যান্য সুবিধাদি

 প্রত্যেক পদবীধারী কাজের লক্ষ্যমাত্রা অনুযায়ী বেতন ভাতা প্রাপ্ত হবেন।লক্ষ্যমাত্রা পূরণ  না হলে সেলস অনুযায়ী কমিশন প্রাপ্ত হবেন। লক্ষ্যমাত্রা পূরণ হলে ও কাজের পারফরম্যান্স ভালো হলে, ইন্সেন্টিভ এবং পদোন্নতির সুযোগ রয়েছে ।

কাজ করার যোগ্যতা

 বয়স সীমাঃ  কমপক্ষে 18 বছর বয়স এবং বাংলাদেশের নাগরিক হতে হবে।

 শিক্ষাগত যোগ্যতাঃ কমপক্ষে এসএসসি পাস হতে হবে (অভিজ্ঞদের জন্য শিক্ষাগত যোগ্যতা শিতিলযোগ্য)

 দক্ষতাঃ  অনলাইন সম্পর্কে প্রাথমিক জ্ঞান সম্পন্ন হতে হবে।

যে কোন পদে কাজ করতে হলে নূণ্যতম 500 টাকা(বাৎসরিক) অনলাইন চার্য প্রদান করতে হবে।(কোম্পানি মাঝে মাঝে গ্রেড/ র‌্যাংক/পদবী ভেদে  অফার দিয়ে থাকে তখন 200 টাকায় বা সম্পূর্ণ ফ্রিতে জয়েন করা যায় তথা আইডি ক্রিয়েট করা যায়)

 উদ্যোক্তা ট্রেনিং নিতে ও অনারেবল কাষ্টমার হিসাবে কোম্পানি কর্তৃক সকল সুযোগ সুবিধা নিতে হলে 100 টাকা দিয়ে সদস্য আইডি গ্রহন করতে হবে।

সম্পূর্ণ ফ্রি তেও কোম্পানির জেনারেল কাস্টমার হওয়া যায়, তবে সেই ক্ষেত্রে কেনাকাটায় ছাড়ের পরিমাণ কম থাকে।

জাগো উদ্যোক্তায় কেন সম্পৃক্ত হবেন ?

ই-কমার্স ভিত্তিক এই কোম্পানী এফিলিয়েট সিস্টেমে মানুষের মৌলিক চাহিদার যে কোন পণ্য ক্রয় করে
ব্যায় থেকেই আয় করার সুবর্ণ সুযোগ পেতে পারেন। তাছাড়া, আমাদের কোম্পানির নির্দিষ্ট ট্রেনিং
গুলো সম্পন্ন করে, দক্ষ হয়ে দৈনিক আয়ের ভিত্তিতে অর্থনৈতিকভাবে স্বয়ংসম্পূর্ণ হতে পারবেন। যা
দেশের বেকার সমস্যাকে কিছুটা হলেও লাঘব করবে।

  • আপনি সুলভ মূল্যে কেনাকাটার জন্য জয়েন করুন।
  • যে কোন পণ্যের ক্ষেত্রে 5% ছাড়ের জন্য জয়েন করুন।
  • আপনি পাট থেকে পাটজাত পণ্য তৈরী করতে হাতে কলমে প্রশিক্ষণ নেওয়ার জন্য জয়েন করুন।
  • আপনার যদি নিজস্ব পণ্য থাকে তাহলে আমাদের সাইটে আমাদের কর্মীদের দ্বারা আপনার পণ্য অনলাইনে বিক্রির জন্য ভেন্ডর হিসাবে জয়েন করুন।
  • আপনি যদি বেকার থাকেন বা অন্য কাজের পাশাপাশি কাজ করতে চান তাহলে তাহলে জয়েন করুন।
  • আপনার এলাকার/জেলার উৎপাদিত পণ্য অন্য জেলায় বিক্রি করতে সাপ্লায়ার হিসাবে জয়েন করুন।
  • সার্ভিস পয়েন্ট নিয়ে রিলাক্সে প্রফিট করতে জয়েন করুন।(নূন্যতম 50,000 টাকার পণ্য নেওয়া এবং রাখার জায়গা থাকতে হবে)
  • সর্বোপরি একজন শুভাকাংখী হিসাবে একটি ফ্রি আইডি একাউন্ট খুলে আমাদের সাথে থাকতে পারেন।

-: লক্ষ্যনীয় :-

আমাদের কোম্পানীর মার্কেটিং প্ল্যান ভালভাবে বুঝে নিয়ে এই কনসেপ্টে সম্পৃক্ত হলে পারস্পরিকভাবে আমরা সবাই লাভবান হব। এটা একটি সামাজিক ব্যবসা,আশা করা স্বল্প সময়ে এই ব্যবসা স্বমৃৃদ্ধি লাভ করবে।

জাগো উদ্যোক্তার মার্কেটিং প্ল্যানের ভিডিও সমূহ

Scroll to Top